Skip to content

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডাউনলোড করা এবং ইনস্টল এর পূর্বে কিছু জিনিস জেনে নিন!!

সবাইকে জানাই রমজানুল মোবারক, রমজানের শুভেচ্ছা সবাইকে 🥰

মোবাইল ফোন সহজলভ্য হওয়ার পর থেকে আমরা সবাই এটির প্রতি ব্যাবহারিক দিক গুলো বাড়িয়ে তুলেছি। কারণে অকারণে ব্যাবহার করতেই থাকি।

বাংলাদেশে মোবাইল ফোন গ্রাহক প্রায় ১৮ কোটি, দিন দিন সংখ্যাটি বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা মোবাইল ফোন ব্যাবহার করার সময় কারণে অকারণে বিভিন্ন অ্যাপ ইনস্টল করে ফেলি।

অনেক ক্ষেত্রে সেইসব অ্যাপস এর মধ্যে ভাইরাস বা স্ক্যামিং করে তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার মতো সাইবার অপরাধ ঘটে থাকে, সেই জন্য অ্যাপস এন্ড্রোয়েড ফোন গুলোতে ইনস্টল এর পূর্বে কিছু নিয়ম মেনে চলুন।

প্রথমেই দেখে নিবেন অ্যাপস যেটি আপনি ইনস্টল করছেন সেই অ্যাপসটি গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যায় নাকি বাইরে থেকে ডাউনলোড করে ইনস্টল করতে হয়।

কারণ গুগল প্লে স্টোর ক্ষতিকর অ্যাপস গুলো সরিয়ে নেই তাদের প্লাটফ্রম থেকে। যাতে সেটি গ্রাহককে ক্ষতিগ্রস্ত না করতে পারে।

যেই অ্যাপস আপনি ডাউনলোড করবেন আগেই দেখে নিতে হবে অ্যাপসটি আপনার পার্সোনাল তথ্য চেয়ে বসে নাকি। কারণ সেগুলোর প্রাক 85% ফেক হয়।

যা ব্যাক্তিগত তথ্য কে হাতিয়ে নেই এবং হয়রানি করে গ্রাহকের ক্ষতি করে থাকে।

যেই অ্যাপস ডাউনলোড করেন না কেনো যদি দেখেন অ্যাপস্ টি কোনো কারণ ছাড়াই চালু বন্ধ হচ্ছে বা ফোন থেকে হাইড হয়ে থাকছে সেটি আপনার তথ্য কে অন্যের কাছে নিয়ে যাচ্ছে,, সুতরাং সাবধান।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস এর মধ্যে যদি কখনো আপনার ফেসবুক আইডি বা কোন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এর আইডি পাসওয়ার্ড চাওয়া হয় সেগুলো ফেক। ভুলেও এই ফাঁদ গুলোতে পা দেওয়া যাবে না।

যদি কখনো কোনো মাধ্যম হতে লটারি বা টাকা পাওয়ার মতো কোনো কথা বলে কোনো অ্যাপস ডাউনলোড করতে লিঙ্ক থেকে অ্যাপস ডাউনলোড করতে বলে ভুলেও ক্লিক করবেন না।

কারণ এর ফলে মাত্র এক সেকেন্ড এর মধ্যেই আপনার সকল ফোন এর ডাটা অন্যের কাছে চলে যেতে পারে, কারণ এইসব বেশিরভাগ ফিশিং লিঙ্ক হয়।

যদি কখনো অ্যাপস বা কোনো কিছু থেকে রেটিং কম দেওয়া থাকে বা নতুন অ্যাপস হয় যেগুলো টাকা পয়সা ধার দেই বা অন্য কিছু করে সেগুলো থেকে দূরে থাকুন।

কারণ তাদের কাছে লোন বা অন্য কিছুর জন্য আপনার ব্যাক্তিগত তথ্য দিবেন যা তারা খারাপ উদ্দেশ্যে ব্যবহার করে আপনাকে দোষী বানিয়ে ফেলতে পারে।

তাই যেকোনো অ্যাপস বা ওয়েবসাইট থেকে ভিজিট করতে বা ডাউনলোড করতে হলে এই সব বিষয় গুলো ভালো করে মাথায় রাখুন।

কারণ আপনার একটা সামান্য ভুল হয়তো আপনার কান্নার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই নিজে সতর্ক থাকুন অন্য কেউ। সতর্ক রাখুন।

ধন্যবাদ আপনাকে কষ্ট করে পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য, trickbd এর সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *