Skip to content

[ সাবধান ] ভুলেও কেউ Benco মোবাইল কিনবেন না।

আসসালমু আলাইকুম কেমন আছেন আপনারা সবাই । আসা করি ভালো আছেন । আল্লাহ রহমতে আমিও ভালো আছি ।

কথা বাড়াবনা ডাইরেক্ট টপিক এর মধ্যে চলে আসি ।

টাইটেলটা অনেক এর কাছেই আজব মনে হয়েছে ।

কিন্তু নিজের ব্যাক্তিগত অভিজ্ঞতা এবং বিভিন্ন রিসার্চ এর থেকেই আজকের টাইটেল টা লিখতে সাহস পেয়েছি ।

এই পোস্টের মাধম্যে যদি আমি বাংলাদেশ এর জনগণ এবং বাংলাদেশ এর উপকার করতে পারি সত্যি সেটা আমার জন্য অনেক গর্বের হবে ।

ঘটনার শুরু থেকেই বলি:

বেশ কয়েক মাস ধরেই আমার বড় বোন মোবাইল কিনবে বলে টাকা জমাচ্ছিল ।

অবশ্যই মেয়ে মানুষ বুঝেনি, অল্প অল্প করে কষ্ট করে ৯৭০০ টাকা জমা করে ।

আর বাসায় টেকনোলজি টাইপ এর যে কোন জিনিস আমিই কিনে আনি।

সেই প্রেক্ষিতে তার মোবাইল কিনার দায়িত্ব টাও আমারি ছিল ।

অনলাইন ঘাটাঘাটি করে আমি Benco V91 নামের এক মোবাইল পেয়ে যাই ।

যার মার্কেট মূল্য অনুযায়ী প্রায় ১০০০০ টাকার মধ্যে আপনি ৪ জিবি Ram এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ পেয়ে যাবেন । ১১০০০ টাকায় আপনি পেয়ে যাবেন ৮ জিবি Ram এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ।

যাই হোক এই প্রাইস রেঞ্জ এ সেম প্রসেসর এর মধ্যে অন্য বাজেট কোম্পানি গুলো এত বেশি Ram দিচ্ছিল না ।

আমি Infinix , Tecno এই ফোন গুলোর সব ঘাটাঘাটি করি ।

১০৯৯৯ টাকা তে Benco V91 যা অফার করছিল তা অন্য কেউ করছিল না । বাকি সবাই ৪ জিবি ram offer করছিল ।

তাই চিন্তা করি এই ফোনটি নিব। (Benco V91)

এই স্টেপ দেখার পরে আমি ইউটিউবে চলে যাই।

এবং সার্চ করি এই ফোন এর মডেল নাম্বার দিয়ে ।

সেখানে নাম করা কয়েকটা চ্যানেল এর ভিডিও দেখে আমি অনেকটাই সাহস পেয়ে যাই এই ব্র্যান্ড এর মোবাইল কেনার জন্য ।

নিচে তাদের নাম উল্লেখ করে দিলাম ।

১। SamZone

২। Mobile Bari

আপনারা সবাই হয়তো এই SamZone কে চিনেন বাংলাদেশ এ তার অনেক বড় একটা রিভিউ চ্যানেল রয়েছে ।

কথা হচ্ছে আমি ভুলটা এই জায়গাতেই করে ফেলি ।

আমার মাথা তে সেই সময় কোনভাবেই আসে নি যে এই YouTuber রা পেইড রিভিউ দিয়ে থাকে।

তাদের কে সিম্পলি স্পন্সরশীপ দেওয়া হয়ে থাকে।

তো যাই হোক , আমি আস্থা টা এই পেইড ইউটিউবার দের বানানো ভিডিও থেকেই পেয়েছিলাম ।

তাই সাহস করে না বুঝেই Benco V91 মার্কেট থেকে কিনে ফেলি ।

কিনেছিলাম আমার এক পরিচত বন্ধুর সাথে গিয়ে । যে তার এক পরিচিত দোকানদার এর কাছে নিয়ে গিয়েছিল ।

ok আমি মোবাইল টা কিনি ১০৫০০ টাকা দিয়ে Benco V91 এর ৮ জিবি Ram ভেরিয়েন্ট টা ।

এত দূর সব ঠিকঠাক ছিল প্রথম দিন মোবাইল ঠিকই ছিল ।

কিন্তু ঝামেলা বাঁধে ২য় দিন ।

এই মোবাইল একা একা বন্ধ হয়ে যাচ্ছিল ।

প্রথমে আমি ভেবেছিলাম ফোন হয়ত আপডেট এর জন্য অটো রিস্টার্ট নিচ্ছে ।

তাই আমি ফোন আপডেট দেওয়া শুরু করি । এইসময় ও ফোন বার বার বন্ধ আর চালু হচ্ছিল ।

আমি তাও বুঝতে পাচ্ছিলাম না কি হচ্ছে ।

আপডেট শেষ হওয়ার পর আমি ভাবলাম সব এখন হয়ত ঠিক আছে , আর প্রব্লেম হবে না । কিন্তু তারপরেও কোন লাভ নাই একই সমস্যা ।

মাথা খারাপ হয়ে গেল । ….

এই ফোন এর সমস্যা কি শুধু এই একটাতেই থেমে ছিল তা কিন্তু মোটেও না , 

ফোন এর ফিঙ্গার প্রিন্ট কাজ করে না ,

ফোন এর ক্যামেরা জঘন্য ।

৩ হাজার টাকার ফোন এর ক্যামেরা ও এর চেয়ে বেটার ।

এখন সিম্পিলভাবে আপনার মাথায় প্রশ্ন আসতেই পারে , আমি সার্ভিস সেন্টার এ নিয়ে গেলেই পারতাম !

এখন আসি মেইন টপিক এ ।

আমিও আশাবাদী ছিলাম যে সার্ভিস সেন্টার এ নিয়ে যাবো ।

তারা সলভ করে দিবে ।

কিন্তু তার পূর্বে আমি , ফেসবুক গ্রুপ এ একটা পোস্ট করি ।

(ফেসবুক গ্রুপ যারা বুঝতেছেন না তাদের কে বুঝিয়ে বলি , আপনি ফেসবুক এর মধ্যে যেকোন মোবাইল এর মডেল লিখে সার্চ দিবেন অথবা ব্র্যান্ড এর নাম দিয়ে সার্চ দিবেন তার কোন না কোন গ্রুপ বের হয়ে আসবে । আমিও এমনি এক বাংলাদেশি Benco মোবাইল এর গ্রুপ এ গিয়ে নিচের পোস্ট টি করি । ) 

আর তখনই এই ব্র্যান্ড এর রিয়ালিটি বুঝতে পারি ।

এইখানে আসতে আসতে সবাই কমেন্ট করতে শুরু করে ।

সবাই প্রায় একই রকম সমস্যায় ভুগছিল ।

যেমন; মোবাইল একা একা বন্ধ হয়ে যায় ।

নেটওয়ার্ক থাকে না ,

ভালো মত কাজ করে না ।

ব্লা ব্লা ।।

আমি কমেন্ট দেখে পুরোই অবাঁক । সবার একই সমস্যা ?!!

তখন অনেকই কমেন্ট ও করে যে সার্ভিস সেন্টার তাদের ৮ মাস ধরে ঘুরাচ্ছে ।

কেউ কেউ নাকি অনেক রিপ্লেস ও নিয়েছে কিন্তু কোন লাভ নাই ওদের সব ফোন একই ।

তখন আমি বুঝে যাই এরা চোর কোম্পানি ।

শুধু মানুষ এর টাকা লুট করার জন্যে এমন আবর্জনা সার্কিট ঢুকিয়ে মানুষ কে লোভ দেখিয়ে ।

মধ্যবিত্ত দের লুটে নিয়ে যাচ্ছে ।

তারপর আমি ইউটিউবে সার্চ করি সমস্যা সম্পর্কে কেউ কিছু পোস্ট করেছি নাকি ?

কিন্তু অবাক করার বিষয় কোন ভিডিও নেই । কিন্তু যখন সার্চ করবেন সার্চ টার্ম অটো কমপ্লিট হয়ে যাবে ।

এর মানে এটাই যে এই টপিক টা প্রচুর সার্চ পড়ছে । (যদি কোন ইউটিউবার থেকে থাকেন তাহলে আমি আপনাদেরকে অবশ্যই রিকোয়েস্ট করব এই পোষ্টের আধারে একটি ভিডিও বানাতে যাতে করে মানুষ প্রতারকদের হাত থেকে বাঁচতে পারে)

যাইহোক আমি গুগল এ আমার এলাকার Benco service center খুঁজতে সার্চ করলে দেখতে পারি ,

ইন্ডিয়াতে তাদের সার্ভিস বন্ধ হয়ে আছে ।

ইন্ডিয়াতে বন্ধ থাকলে বাংলাদেশ এ বন্ধ করতে কতক্ষন ?

আর এমন ডিভাইস নিয়ে আপনি কয়দিন ঘুরবেন ?

আর সবচেয়ে বড় কথা আপনার কি কাজ কাম নাই নাকি? যে আপনি একটি ফোন নিয়ে দিনের পর দিন সার্ভিস সেন্টারে ঘুরে বেড়াবেন!

এটা কিন্তু পুরোটাই বিরক্ত কর, পাশাপাশি আপনার অনেক ভাড়া ও খরচ হয়ে যাবে।

আপনাদের অনেকের হয়তোবা মনে হতে পারে আমি ইচ্ছাকৃতভাবে এমন পোস্ট করতেছিঃ তাই আপনাদের জন্য নিচে কিছু স্ক্রিনশট দিলাম।

তো এখানে আমি জাস্ট কিছু কিছু স্ক্রিনশট নিয়ে এসে আপনাদেরকে শেয়ার করে দেখাচ্ছি। বিশ্বাস করেন ওই গ্রুপের মধ্যে আপনি এমন অনেক পোস্ট পেয়ে যাবেন সাথে কমেন্টও পাবেন।

তো এখন আমি আপনাদেরকে এর পরের ঘটনা বলি।

আমি যখন এত কিছু দেখতে পারি এই গ্রুপের মধ্যে তখন আমার মাথা কাজ করা বন্ধ হয়ে যায়।

আমি চিন্তা করতে থাকি এটা কি হয়ে গেল!

কারণ বুঝতেই পারছেন যে এই ফোন কোন ভাবে চালানো সম্ভব না।

আর তখনই আমার পোষ্টের মধ্যে একজনের কমেন্ট আসে।

সে ভাই বলে যে তিনি নাকি তার ফোনটা ফাপর নিয়ে দোকানদারের কাছে কোনমতে পাল্টে নিয়েছিল।

আর তখনই আমি একটি সাহস পেয়ে যাই, যেহেতু দোকানদার আমাদের পরিচিত ছিল কিছুটা। তাই চিন্তা করি ফ্রেন্ডকে নিয়ে আবারো যাব। এবং সর্বোচ্চ চেষ্টা করব এই ব্র্যান্ডের ফোনটি পাল্টিয়ে অন্য ব্রান্ডের ফোন নেওয়ার।

ভাইরে ভাই বিশ্বাস করেন এত কষ্ট হয়েছে এই কাজটা করতে, কিন্তু শেষমেষ অনেক রিকুয়েস্ট করার পরে ফাইনালি দোকানদারের কাছ থেকে, আমি Tecno ফোন নিতে সফল হই।

এর জন্য আমাকে আলাদা করে ২২০০ টাকা গুনতে হয়েছিল।

আমি চিন্তা করেছিলাম তারা যদি আমার কাছ থেকে ১০০০ টাকাও চাইতো তারপরেও আমি সেটা তাদেরকে দিতাম।

কারণ আমি কোন ভাবে রাজি ছিলাম না এমন একটি বাজে ব্র্যান্ডের সাথে থাকতে।

আমার কি মনে হয় জানেন, এরা শুধু মানুষের টাকা লুট করছে আর কিছুই না।

এতে আমাদের দেশের মানুষের যেমন ক্ষতি হচ্ছে তেমন দেশেরও ক্ষতি হচ্ছে!

এত এত বড় ভাবে ডিজিটাল চুরি এটাকে বলে হয়তোবা ।

তাই আমার রিকোয়েস্ট থাকবে আপনাদের কাছে, যারা যারা এই পোস্টটি পড়েছেন তারা অবশ্যই নিকট আত্মীয়দের কে শেয়ার করবেন এবং আপনার বন্ধুবান্ধবদেরকে এরকম ধোঁকার মধ্যে না পড়তে সাহায্য করবেন।

এ পোস্ট থেকে অনেক কিছুই শেখার আছে। মানুষ তাদের খারাপ সময় থেকেই শিখতে পারে, আপনি যেন এই খারাপ সময়ের মুখোমুখি না হন তাই আমি আমার খারাপ সময়টি আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি।

যদি কোন ইউটিউবার আমার এই পোস্টটি পড়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই একটি ভিডিও তৈরি করবেন এবং মানুষকে সচেতন করবেন।

কারণ আপনার একটি ভিডিও হয়তো অনেক মানুষের সাহায্য করবে। অথবা একটি বড় ভুল করার থেকে তাকে বাঁচিয়ে দেবে।

আমি তো কোন রকমে ব্রান্ড চেঞ্জ করতে সক্ষম হয়েছিলাম। কিন্তু অন্যরা কি তা পারবে!

অনেকেই অনেক কষ্টে জমানো টাকা দিয়ে শুধু একটি সাধের মোবাইল কিনতে চায়। আর তার স্বপ্ন যদি এভাবে চুরমার হয়ে যায় এমন ফালতু ব্রান্ডের কারণে তাহলে তার কতটাই না খারাপ লাগবে!

তাই প্লিজ এই বিষয়টি বেশি বেশি করে শেয়ার করুন।

আর ট্রিকবিডি টিমের কাছে অনুরোধ থাকবে পোস্টটি যেন কিছুদিনের জন্য হলেও ফিচার পোস্টের মধ্যে রাখা হয়। 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *