Skip to content

Custom Rom(কাষ্টম রম) কি? কিভাবে নিজেই এন্ড্রোয়েড এ কাস্টম রম দিবেন ।

<h2>                                 (((((((((((((আসসালামুয়ালাইকুম))))))))))))))))</h2>
&nbsp;
<h2>ট্রিকবিডির সকল মেম্বারদের আমার সালাম ও শুভেচ্ছা কামনা রইলো ।

<img class=”size-full wp-image-36608 aligncenter” src=”https://technicalbangla.com/wp-content/uploads/2023/04/Custom-Romকাষ্টম-রম-কি-কিভাবে-নিজেই-এন্ড্রোয়েড-এ-কাস্টম-রম-দিবেন-।-Full-tutorial-02.jpg” alt=”” width=”194″ height=”259″ /></h2>
আমরা যারা অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস ইউজ করি তাদের কাছে কাস্টম রম একটি অতি পরিচিত শব্দ। সময়ের সাথে সাথে স্টক রমের পরিবর্তে কাস্টম রমের জনপ্রিয়তা অনেক বেড়ে গেছে। এর কারণ একটাই। আর সেই কারণ হল কাস্টম রমের আকর্ষণীয় সব ফিচার এবং কাস্টমাইজেশন অপশন, যার মজা স্টক রমে নেয়া সম্ভব নয়। তাই অ্যান্ড্রয়েদ ডিভাইস কেনার পর আমরা ডিভাইসের জন্য কাস্টম রমের কথা ভাবি । কিন্তু অ্যাডভান্সড ইউজার ছাড়া কাস্টম রমের সাথে জড়িত অনেক কিছু সম্পর্কে আমাদের অনেকের তেমন ধারণা নেই।
অনেকেরই ইচ্ছা হয় তাদের প্রিয় অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে বিভিন্ন ধরনের কাস্টম রম ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েডের আসল মজা নিতে।
কিন্তু অনেকই জানে না যে কিভাবে কাস্টম রম ফ্লাশ করতে হয়।
তাই কাস্টম রম সম্পর্কিত সকল তথ্য নিয়ে আমার আজকের পোস্ট…কিভাবে কাস্টম রম ফ্লাশ করবেন সম্পূর্ণ টিউটিরিয়ালঃ
<h2>Custom rom(কাষ্টম রম) কি ?।</h2>
সহজ কথায় কাস্টম রম মানে হল আপনার অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন অথবা ট্যাবলেট এর জন্য একটি বিকল্প অপারেটিং সিস্টেম। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস গুলোতে ম্যানুফ্যাকচারার কর্তৃক বিভিন্ন ফার্মওয়্যার বা অপারেটিং সিস্টেম দেয়া থাকে, যেমন স্যামসাঙ ডিভাইস গুলোতে Touchwiz এবং HTC ডিভাইস গুলোতে Sense. কাস্টম রমে আপনি স্টক অপারেটিং সিস্টেম এর তুলনায় অনেক বেশি কাস্টমাইজেশন সুবিধা পাবেন। অর্থাৎ কাস্টম রমের মাধ্যমে স্টক রমের তুলনায় আপনি আপনার ডিভাইসকে খানিকটা বেশি নিয়ন্ত্রণ করার সুজগ পাবেন। এছাড়া কাস্টম রম আপনার ডিভাইসে অ্যান্ড্রয়েডের সবচেয়ে আপডেটেড ভার্সন ইন্সটল করার একটি সহজ পথ।
<h2>Custom rom(কাষ্টম রম) কিভাবে দিবেন ??</h2>
<h2>TWRP এর মাধ্যমেঃ</h2>
প্রথমে নির্দিষ্ট সাইট বা লিংক থেকে আপনার ফোনের Custom Rom ডাউনলোড করে নিন।
এরপর,Custom Rom এর Zip ফাইলটি মেমোরি কার্ডের হোম ডিরেক্টরিতে রাখুন (কোন ফোল্ডরে নয়)।

এবার, ফোন বন্ধ করুন।
ফোন বন্ধ হবার পরে <strong>Volume Up</strong> ও <strong>Power</strong> বাটন একসাথে চেপে দরুন, <strong>Boot Logo</strong> আসলে, বাটনগুলো ছেড়ে দিন। তাহলেই আপনার ফোনের <strong>Recovery Mode </strong>চালু/ওপেন হবে।

আপনি,<strong>Wipe</strong> এ ক্লিক করে সেখানে থাকা <strong>cache,delvik-cache, factory data, system, android secure </strong>একে একে Select করে সেগুলোকে Wipe করুন ।

এবার ব্যাকে গিয়ে Install ক্লিক করে, আপনার মেমোরি কার্ডে থাকা<strong> Rom Selecte</strong> করুন এবং<strong> Swipe</strong> করুন। তাহলেই<strong> Rom flash </strong>শুরু হয়ে যাবে।
↑↓
কিছুসময় অপেক্ষা করুন ফ্লাশ হবার জন্য। ফ্লাশ শেষ হলে, আবার Wipe এ গিয়ে Cache, Delvik-Cache Wipe করে Reboot করুন।
প্রথম বার ফোন চালু হতে কিছু সময় লাগবে। ফোন চালু হলো স্ক্রীনে প্রদর্শীত নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করুন।
ব্যস রম ফ্লাশের কাজ পরিপূর্ণ।
<h2>CWM এর মাধ্যমেঃ</h2>
প্রথমে নির্দিষ্ট সাইট বা লিংক থেকে আপনার ফোনের Custom Rom ডাউনলোড করে নিন।
এরপর,Custom Rom এর Zip ফাইলটি মেমোরি কার্ডের হোম ডিরেক্টরিতে রাখুন (কোন ফোল্ডরে নয়)।

ফোন বন্ধ করুন।
ফোন বন্ধ হবার পরে Volume Up ও Power বাটন একসাথে চেপে দরুন, Boot Logo আসলে, বাটনগুলো ছেড়ে দিন।
তাহলেই আপনার ফোনের Recovery Mode চালু/ওপেন হবে।
Volume বাটনের সাহায্যে Wipe Data এর উপরে গিয়ে Power বাটনের সাহায্যে ক্লিক করুন এবং Factory Reset এ ক্লিক করে Yes চাপুন।

তারপর, Wipe Cache Partition ক্লিক করে Yes চাপুন।
আবার,Advance এ গিয়ে Wipe Delvik Cache ক্লিক করে Yes চাপুন।
একইভাবে Munts and Storeg গিয়ে Format
System সিলেক্ট করে Yes চাপুন।

এবার Install Zip From SD Card থেকে Chose Zip From SD Card গিয়ে Rom সিলেক্ট করুন এবং (yes) চাপুন। তাহলেই রম ফ্লাশ শুরু হয়ে যাবে।
Flash হতে কিছুক্ষণ সময় লাগবে, অপেক্ষা করুন। ফ্লাস হয়ে গেলে Back গিয়ে Reboot System Now এ ক্লিক করুন।

প্রথম বার ফোন চালু হতে কিছু সময় লাগবে। ফোন চালু হলো স্ক্রীনে প্রদর্শীত নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করুন।
ব্যস আমাদের রম ফ্লাশের কাজ শেষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *